ড. জগৎ চাঁদ মালাকার:ভোক্তার সন্তুষ্টি অজর্নের এবং লাভের আশায় কোন কৃষিপণ্য আহরণ/ক্রয়ের পর এর উপর বাড়তি কাজ করা করাকে /পণ্যের খরচের উপর বাড়তি মূল্য যোগ করাকে মূল্য সংযোজন বলে। প্রতিযোগীতায় টিকে থাকা এবং প্রতিযোগীর উপর বাড়তি সুবিধা অর্জন করে ভোক্তা সন্তুষ্টি অর্জন করাই হলো মূল্য সংযোজন। মোটামুটি ভাবে বলা যায়-ভোক্তার সন্তুষ্টি অর্জন, প্রতিযোগী থেকে এগিয়ে থাকা,পণ্যের বেশী মূল্য পাওয়া। সুতরাং বাজারজাত করার পূর্বে বাজারে (4ps of marketing) মানসম্মত কৃষিপণ্য (products), সুবিধাজনক মূল্য (price), স্থান-আন্তর্জাতিক বাজার(place) and প্রচারেই প্রসার (promotions) বিষযগুলো গুরুত্ব দেয়া প্রয়োজন।

by Gina Medina, L. Jungbauer and K.Wendler, Delacon Biotechnik, Steyregg, Austria and  C.W. Kang, Konkuk University, Seoul, South Korea:The poultry industry today faces challenges such as rising feed and production costs apart from the demand of being one major source of animal protein in response to the growing global human population in the perspective of food safety and security.

Dr. Md. Gazi Golam Mortuza:The United Nations has announced that it will approve designating 7 October of each year as World Cotton Day on its permanent calendar. First launched in 2019 at the World Trade Organization (WTO) headquarters in Geneva, World Cotton Day continues to grow each year.

কৃষিবিদ দীন মোহাম্মদ দীনু:বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের মাৎস্যবিজ্ঞান অনুষদের একোয়াকালচার বিভাগের আয়োজনে BBSRC, UK ফান্ড-এর সহযোগিতায় “Risk-based Pedigree-analysis of the Prophylctic Aquaculture Health Products and Improved Smallholder Health Management in Bangladesh (PEDIGREE)” শীর্ষক গবেষণা প্রকল্পের এক ভার্চুয়াল কর্মশালা সেপ্টেম্বর ২০২১ বুধবার ৩:০০ ঘটিকায় বিশ্ববিদ্যালয়ের মাৎস্যবিজ্ঞান অনুষদে অনুষ্ঠিত হয়।

আবুল বাশার মিরাজ, বাকৃবি প্রতিনিধি:কাঁচকি মাছ প্রক্রিয়া করে কাঁচকি মাছের চানাচুর এবং কুড়কুড়ে বাদাম ও তিলের বার তৈরি করেছেন বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বাকৃবি) ফিশারিজ টেকনোলজি বিভাগের একদল গবেষক। সরকারের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের অর্থায়নে একটি প্রকল্পের আওতায় গবেষণাটি পরিচালনা করেন গবেষকবৃন্দ। রবিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন গবেষক দলের প্রধান ফিশারিজ টেকনোলজি বিভাগের অধ্যাপক ড. মুহম্মদ নুরুল হায়দার।গবেষণায় সহযোগী গবেষক ছিলেন প্রভাষক মো. মোবারক হোসেন।

ড. জগৎ চাঁদ মালাকার                                                                                      
জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর কৃষি :
জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান অনুধাবন করেছিলেন কৃষির উন্নতিই হচ্ছে কৃষকের অর্থনৈতিক মুক্তি। সে কারণেই স্বাধীনতার পরই তিনি সবুজ বিপ্লবের ডাক দিয়েছিলেন। ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত বাংলাদেশের স্বপ্ন দেখেছিলেন। জাতির পিতা খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জনের লক্ষ্য নিয়ে বলেছিলেন, খাদ্যের জন্য অন্যের উপর নির্ভর করলে চলবে না। আমাদের নিজেদের প্রয়োজনীয় খাদ্য আমাদেরই উৎপাদন করতে হবে। আমরা কেন অন্যের কাছে খাদ্য ভিক্ষা চাইব। আমাদের উর্বর জমি, অবারিত প্রাকৃতিক সম্পদ, আমাদের পরিশ্রমী মানুষ, আমাদের গবেষণা সম্প্রসারণ কাজে সমন্বয় করে আমরা খাদ্যে স্বয়ম্ভরতা অর্জন করব। এটা শুধু সময়ের ব্যাপার”। (সূত্র কৃষি ও কৃষকের বঙ্গবন্ধু, ড. সামসুল আলম, পৃষ্ঠা-৪৩) সময়ের ব্যবধানে বঙ্গবন্ধু কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শী নেতৃত্বে দেশ আজ খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ।