আবুল বাশার মিরাজ, বাকৃবি:বাংলাদেশের জাতীয় মাছ ইলিশ। ভৌগোলিক নির্দেশক (জিওগ্রাফিক্যাল ইনডিকেশন) সংক্ষেপে জিআই পণ্য হিসেবে সারা বিশ্বে স্বীকৃতি ইলিশ। জিআই পণ্যেও স্বীকৃতির পাশাপাশি ইলিশ উৎপাদনেও বাংলাদেশ পৃথিবীতে প্রথম। কিন্তু এ উৎপাদন ধরে রাখায় এখন চ্যালেজ্ঞ বলে আশংকা করেছেন গবেষকরা। নদীর গতিপথ পরিবর্তনে ইলিশের মোট উৎপাদন অনেকাংশে কমেছে। বছরে বছরে যে হারে  উৎপাদন বাড়ার কথা ছিল তা হয়নি। গত ৫০ বছরের পদ্মা নদীর গতি পরিবর্তন থেকে শুরু করে বিভিন্ন তথ্য বিশ্লেষণের ভিত্তিতে ‘আমেরিকান জার্নাল অব ক্লাইমেট চেঞ্জ’ জার্নালের সর্বশেষ সংখ্যায় ‘ক্লাইমেট চেঞ্জ অ্যান্ড অ্যানথ্রোপজেনিক ইন্টারফিয়ারেন্স ফর দ্য মরফোলজিক্যাল চেঞ্জেস অব দ্য পদ্মা রিভার ইন বাংলাদেশ’ শীর্ষক এক গবেষণা প্রতিবেদন প্রকাশ হয়েছে।

ড. আমিনা খাতুন এবং লিপিয়ারা খাতুন:বাংলাদেশের বানিজ্যিক কৃষির সম্ভাবনাময় ফসল কাজুবাদাম। কাজুবাদাম অত্যন্ত সুস্বাদু একটি নাট বা বাদাম জাতীয় বিদেশী ফসল। বৃক্ষজাতীয় ফসলের আর্ন্তজাতিক বাণিজ্যে কাজুবাদামের স্থান তৃতীয়। দক্ষিণ আমেরিকা মহাদেশের ব্রাজিল কাজুবাদামের আদি জন্মস্থান। বর্তমানে উষ্ণমন্ডলীয় দেশ ইন্দোনেশিয়া, মালয়েশিয়া, ভারত, কেনিয়া, মোজাম্বিক, তানজানিয়া, মাদাগাস্কার প্রভৃতি দেশে প্রধানত কাজুবাদাম উৎপাদিত হয়ে থাকে। দেশের তিন পার্বত্য জেলা বান্দরবান, রাঙ্গামাটি ও খাগড়াছড়ি সহ চট্টগ্রাম, ফেণী, কুমিল্লা, ব্রাহ্মনবাড়ীয়া, বৃহত্তর সিলেট, টাঙ্গাইল, শেরপুরের পাহাড় ও টিলা এলাকায় এর প্রচুর চাষ উপযোগীতা রয়েছে।

ড. মো. আজহারুল ইসলাম:১৯৬৪ সালের ১৮ অক্টোবর, ধানমন্ডি ৩২ নাম্বার বাড়িকে আলোকিত করে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতার আদরের ছোট সন্তান হয়ে যে শিশুটি জন্ম নিয়েছিল তাঁর নাম রাসেল। রাসেল নামকরণেরও একটি ইতিহাস আছে। বঙ্গবন্ধু মুজিবের বই পড়ার প্রতি ছিল প্রচুর নেশা। বিখ্যাত নোবেল বিজয়ী দার্শনিক বার্ট্রান্ড রাসেলের ছিলেন একজন ভক্ত। বার্ট্রান্ড রাসেল শুধু দার্শনিকই ছিলেন না, ছিলেন বিজ্ঞানী ও রাজনৈতিক সচেতন ব্যক্তি। ছিলেন পারমাণবিক যুদ্ধ বিরোধী আন্দোলনের বিশ্বনেতা।

আমাদের কর্মই আমাদের ভবিষৎ
ভালো উৎপাদন, ভালো পুস্টি
একটি ভালো পরিবেশই একটি উন্নত জীবন,
ড. জগৎ চাঁদ মালাকার:"Our actions are our future. Better production, better nutrition, a better environment and a better life" উপরোক্ত প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে এবারে জাতিসংঘের খাদ্য ও কৃষি সংস্থার (এফএও) উদ্যোগে আজ ১৬ অক্টোবর বিশ্ব খাদ্য দিবস পালিত হচ্ছে।

By QU Dongyu, Director General of the Food and Agriculture Organization of the United Nations
This year’s World Food Day finds us at a critical moment. The COVID-19 pandemic remains a global challenge, causing untold losses and hardship. The impacts of the climate crisis are all around us. Crops have gone up in flames. Homes have been washed away. Lives and livelihoods have been thrown into turmoil due to conflict and other humanitarian emergencies. Global food security challenges have not been this severe for years.

প্রফেসর ডঃ মোঃ ইলিয়াস হোসেন:বাজারে যে সকল আমিষ জাতীয় খাবার পাওয়া যায় তার মধ্যে ডিম অত্যন্ত পুষ্টিগুণসম্পন্ন এবং সহজলভ্য একটি খাবার। শিশু থেকে শুরু করে বয়স্ক সব ধরনের মানুষের জন্য ডিম একটি উপকারী খাবার। তাছাড়া দামে কম হওয়ায় পোল্ট্রিশিল্প হতে প্রাপ্ত ডিম এবং মাংস সব শ্রেণীর পেশার মানুষের জন্য আমিষের অন্যতম প্রধান উৎস। বর্তমান সময়ে গরিবের পুষ্টি বলতে পোল্ট্রিশিল্প থেকে প্রাপ্ত ডিম ও মাংস কে বুঝায়। পোল্ট্রি শিল্পের বিকাশের ফলে কয়েক বছর আগেও আমিষের চাহিদা পূরণ করতে না পারা দরিদ্র জনগোষ্ঠী এখন সহজেই তাদের পুষ্টি চাহিদা অনেকাংশেই পূরণ করতে পারছেন। বর্তমান ও ভবিষ্যৎ প্রজন্মের নিরাপদ খাদ্য ও পুষ্টির চাহিদা পূরণের জন্য ডিম ও মাংসের চাহিদা আরো অনেক বৃদ্ধি পাবে।