Abul Bashar Meraz:My home district is Bogura. During the Corona period, my university was closed. At this time, I stayed at my village home. A paved road has been built next to my house. But the landslide is not going to stop the road in the rainy season. The government  spends a lot of money to repair these roads. Every year, it is a kind of loss for the country. To protect from this loss, it should plant a lot of trees. For this I did not sit at home but went down to work. I started planting trees with the help of the youth of the area to prevent the landslide.

ড. সৈয়দ মোঃ এহসানুর রহমান:প্রাথমিক, মাধ্যমিক, উচ্চমাধ্যমিক ও বিশ্ববিদ্যালয় সহ মাদ্রাসা ও কারিগরী সকল পর্যায়ের শিক্ষাব্যবস্থাতেই টেকসই গুণগত পরিবর্তন আনতে হবে। প্রতিটি শিশু যেন আদর্শ নাগরিক হয়ে দেশ গঠনে ভূমিকা রাখতে পারে এবং মানবিক গুন সম্পন্ন মানুষ হয়ে সুস্থ জাতি গঠনে অবদান রাখতে পারে এজন্য প্রাথমিক পর্যায় থেকে শুরু করে বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায় পর্যন্ত বর্তমানে নির্ধারিত ও প্রচলিত পাঠ্য/কোর্স এর সাথে “নৈতিক শিক্ষা”, “স্বাস্থ্য ও পুষ্টি”, “আইন ও শরীরচর্চা”, “ইতিহাস ও সংস্কৃতি” বিষয়ক এই চারটি কোর্স বাধ্যতামূলকভাবে অন্তর্ভুক্ত করতে হবে।

প্রফেসর ড. এ. কে. এম. জাকির হোসেন:পরিবেশই প্রাণের ধারক, জীবনীশক্তির বাহক। পরিবেশের ওপর নির্ভর করেই বিকাশ ঘটে মানুষ, অন্যান্য উদ্ভিদ ও প্রাণী জীবনের। সৃষ্টির আদি থেকেই পরিবেশের সঙ্গে প্রাণীর মানিয়ে নেওয়ার সক্ষমতার ওপরেই নির্ভর করছে প্রাণ ও প্রকৃতির অস্তিত্ব। পরিবেশ প্রতিকূল হলে জীবের ধ্বংস ও বিনাশ অনিবার্য। তাই পরিবেশ ও মানুষের মধ্যে রয়েছে এক নিবিড় যোগসূত্র। কিন্তু প্রতিনিয়ত এ পরিবেশকে আমরা মানুষেরাই নানাভাবে বিষিয়ে তুলেছি, দূষিত করে আসছি।

ড. মো. আজহারুল ইসলাম: জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ছিলেন একজন প্রকৃতি প্রেমিক, একজন পরিবেশ প্রেমিক। দেশমাতৃকার প্রতি যে দরদ ও ভালোবাসা বঙ্গবন্ধু সব সময় অনুভব করতেন, ঠিক তেমনি দেশের প্রকৃতি ও পরিবেশের প্রতিও ছিল অন্যরকম ভালোবাসা। কারাগারের মধ্যে থেকেও পরিবেশের প্রতি একটুও টান কমেনি। কারাগারের রোজনামচা বই থেকে জানা যায়, ১৭ জুলাই ১৯৬৬ সালের ঘটনায় বঙ্গবন্ধু লেখেন, 'বাদলা ঘাসগুলি আমার দুর্বার বাগানটা নষ্ট করে দিতেছে। কত যে তুলে ফেললাম। তুলেও শেষ করতে পারছি না। আমিও নাছোড়বান্দা। আজ আবার কয়েকজন কয়েদি নিয়ে বাদলা ঘাস ধ্বংসের অভিযান শুরু করলাম। অনেক তুললাম আজ। আমি কিছু সময় আরও কাজ করলাম ফুলের বাগানে।' একজন প্রকৃতি প্রেমিক হিসেবে বঙ্গবন্ধু সব সময় সুজলা সুফলা স্বপ্নের বাংলাদেশ গড়তে আত্মনিয়োগ করতেন।

আগামী চার বছরের জন্য কুড়িগ্রাম কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়-এর উপাচার্য হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন অধ্যাপক ড. এ কে এম জাকির হোসেন। তিনি বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ফসল উদ্ভিদ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক। নবনিযুক্ত উপাচার্যের সাথে কথা বলে নতুন এ্ই বিশ্ববিদ্যালয়ের নানা পরিকল্পনার কথা জেনেছেন আবুল বাশার মিরাজ

আবুল বাশার মিরাজ, বাকৃবি প্রতিনিধি:মহামারি কোভিড-১৯ এ কোটি কোটি মানুষ আক্রান্ত হলেও গবাদিপশুর আক্রান্ত হওয়ার কোনো সম্ভাবনা নেই। গরু, মহিষ, ছাগল, ভেড়া, মুরগিতে করোনা ভাইরাস সংক্রমণের কোনো রিপোর্ট পাওয়া যায়নি। এমনকি এসব প্রাণী হতে মানবদেহে সংক্রমণেরও কোনো সম্ভাবনা নেই। তাই কুরবানির পশু জবাই এবং মাংস নিয়ে করোনা সংক্রমনের ভয়ের কোন কারণ নেই। বাংলাদেশ সোসাইটি ফর ভেটেরিনারি এডুকেশন এন্ড রিসার্চের (বিএসভিইআর) ২৮ তম বার্ষিক বৈজ্ঞানিক সম্মেলনের ৮০ টি গবেষণা পত্র উপস্থান শেষে এমন তথ্য উঠে আসে।