ইসলামিক ডেস্ক:বাংলাদেশসহ সারাবিশ্বে কোভিড -১৯  করোনা ভাইরাস পরিস্থিতি মহামারি আকার ধারন করেছে। করোনা ভাইরাসের ভয়াবহ প্রাদুর্ভাব হতে বাংলাদেশ সহ সারা বিশ্বের সকল মানুষের সুরক্ষা, অসুস্থদের দ্রুত আরোগ্য লাভ, মহামারি পরিস্থিতির দ্রুত উন্নতি এবং দেশ ও জাতির সার্বিক কল্যাণ কামনা করে আজ ২৪ রমজান ১৪৪২ হিজরি (৭ মে, ২০২১)পবিত্র জুমাতুল বিদা নামাজ শেষে দেশের সকল মসজিদে বিশেষ দোয়ার আয়োজন করা হবে।

ইসলামিক ডেস্ক:সত্য-মিথ্যার পার্থক্য নির্দেশক গ্রন্থ আল কুরআনুল কারিম নাজিলের মাস রমজানুল মোবারকের সতেরো রমজান (১৭ রমজান)  দিনটি অসাধারণ তাৎপর্যের অধিকারী।  হিজরি দ্বিতীয় সনের সতের রমজান মদিনা থেকে প্রায় ৭০ মাইল দূরে বদর প্রান্তরে সংঘটিত হয়েছিল আল্লাহর একত্ব ও তাঁর পাঠানো রাসূলের প্রতি অবিশ্বাসী বিশাল সুসজ্জিত বাহিনীর বিরুদ্ধে বিশ্বাসী মুষ্টিমেয় দলের প্রত্যক্ষ সশস্ত্র লড়াই।

ইসলামিক ডেস্ক:রমজানে এ বছর বাংলাদেশে ফিতরার হার জনপ্রতি সর্বনিম্ন ৭০ টাকা ও সর্বোচ্চ ২ হাজার ৩১০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। দেশের সব বিভাগ থেকে সংগৃহীত আটা, যব, খেজুর, কিশমিশ ও পনিরের সর্বোচ্চ বাজারমূল্যের ভিত্তিতে এই ফিতরা নির্ধারণ করেছে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের জাতীয় ফিতরা নির্ধারণ কমিটি। নিজ নিজ সামর্থ্য অনুযায়ী এসব পণ্যের যেকোনো একটি পণ্য বা এর বাজারমূল্য দিয়ে ফিতরা আদায় করা যাবে। পণ্যগুলোর স্থানীয় মূল্যে পরিশোধ করলেও ফিতরা আদায় হবে।

ইসলামিক ডেস্ক:রমজানের প্রথম দশক রহমতের। আল্লাহ আমাদের প্রতি দয়া করবেন, আমাদেরও তাঁর সৃষ্টির প্রতি দয়া করতে হবে। কোরআন কারিমে আল্লাহ তাআলা বলেন, ‘দয়ার বিনিময় দয়া ছাড়া আর কী হতে পারে?’ (সুরা-৫৫ রহমান, আয়াত: ৬০)। যদিও বান্দার প্রতি আল্লাহর দয়া বা রহমত সর্বকালে সর্বক্ষণ বর্ষিত হতে থাক, বিশেষ করে পবিত্র মাহে রমজানে এর ব্যাপকতা আরও বৃদ্ধি পেতে থাকে। রমজানের প্রথম দশক রহমতের দশক হিসেবে বিশেষায়িত।

ইসলামিক ডেস্ক:রহমত, বরকত, মাগফিরাত ও নাজাতের মাস পবিত্র রমজান আমাদের দুয়ারে কড়া নাড়ছে।  এসময় নিজে প্রস্তুতি নেওয়ার পাশাপাশি পাড়া-প্রতিবেশী, বন্ধুবান্ধব ও আত্মীয়স্বজনের মধ্যে রমজানের গুরুত্ব, ফজিলত ও পবিত্রতা রক্ষায় ভূমিকা রাখা মুমিন মুসলমানদের অন্যতম দায়িত্ব। রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম সাহাবিদের রমজানের পূর্ণ প্রস্তুতি গ্রহণের জন্য নানাভাবে উৎসাহিত-উদ্দীপিত করতেন, সর্বস্ব নিয়োগ করে তাতে কল্যাণ আহরণের জন্য আত্মনিয়োগের পরামর্শ দিতেন।

এগ্রিলাইফ২৪ ডটকম:আহলান সাহলান মাহে রমজান; দুয়ারে কড়া নাড়ছে পবিত্র মাহে রমজানুল মুবারক। গতবারের ন্যায় এবারো করোনার মাঝেই আমাদের পালন করতে হবে এ মাসটি। মুমিন মুসলমানরা শত দুর্যোগের মাঝ্রে তাদের মনোবল অটুট রেখে পরকাল ও ধর্মের বিষয়গুলি প্রতিপালন করে থাকে। দুর্যোগকবলিত মানুষদের আরও বেশি ইবাদত-বন্দেগিতে মনোযোগী হতে হবে। তাই আসুন আমরা রমজানুল মুবারককে স্বাগত জানাতে মানসিক প্রস্তুতি সম্পন্ন করি। কিন্তু আমাদের জীবনে অধিকাংশ সময় কাটছে সোশ্যাল মিডিয়ায়, নয় তো চরম আলস্য ও উদাসীনতায়। এ থেকে মৃক্তি পেতে বেশি বেশি করে ইবাদত বন্দেগী করা উচিত। আল্লাহর ওপর পূর্ণ ভরসা করেই আমাদের পার করতে হবে কঠিন সময়গুলো। আল্লাহ সুবহানাহু তায়ালা ইরশাদ করেন, ধৈর্যধারণকারীদের অপরিমিত পুরস্কার দেয়া হবে। [সূরা যুমার, আয়াত: ১০]