কৃষিবিদ দীন মোহাম্মদ দীনু:ব্যাক্টেরিয়ার নাম শুনলেই মানুষ আগে ভয় পেতো, এখন আর ভয় নয়, বন্ধু হিসেবে বেসিলাস ব্যাক্টেরিয়াকে গ্রহণ করা যাবে, আর মানুষের সাথে যার মিল সবচেয়ে বেশি। মিলের সাদৃশ্যকে বিবেচনায় এনে প্রকৃতি হতে শতকরা ৭৬ ভাগ উপকারি ব্যাক্টেরিয়া সংগ্রহ করা যাবে উদ্ভাবনীয় প্রযুক্তির মাধ্যমে। এ ব্যাক্টেরিয়ার ব্যবহার বেগুনের ঢলে পড়া রোগ নিয়ন্ত্রনে ব্যাপক সাফল্য এসেছে। ব্যাক্টেরিয়ার ব্যবহার ও প্রয়োগোত্তর ফলাফল নিয়ে এক ব্যতিক্রম ধরনের জাতীয় সেমিনারেএমনটিই জানালেন প্রধান গবেষক ড. মুহাম্মদ তোফাজ্জল হোসেন।

আবুল বাশার মিরাজ, বাকৃবি প্রতিনিধি:ম্যাগনেশিয়াম অ্যালুমিনিয়াম ফসফেস (ষ্ট্রুভাইট) ক্রিস্টাল সংযোজন করে পোল্ট্রির বর্জ্য ব্যবস্থাপনার মাধ্যমে গুণগতমান সম্পন্ন জৈব সার উৎপাদনের পাশাপাশি পরিবেশ দূষণ কমানো সম্ভব। পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষার পাশাপাশি মানসম্পন্ন জৈব সার ব্যবহারে কৃষকরা আর্থিকভাবে লাভবান হবেন।

নাহিদ বিন রফিক (বরিশাল): রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধিতে করণীয় শীর্ষক সেমিনার আজ বরিশালের বারটানের হলরুমে অনুষ্ঠিত হয়। বাংলাদেশ ফলিত পুষ্টি গবেষণা ও প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট (বারটান) আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের (ডিএই) অতিরিক্ত পরিচালক মো. তাওফিকুল আলম।

এগ্রিলাইফ২৪ ডটকম:ভেড়ার মাংস সার্বিক গুণ বিচারে কোন অংশেই ছাগল ও গরুর মাংসের চেয়ে কম নয় বরং এতে কলেস্টেরল ও চর্বি কম থাকায় এবং প্রয়োজনীয় প্রায় সকল পুষ্টি উপাদান বেশী থাকায় সুস্বাস্থের জন্য অত্যন্ত উপযোগী। সঠিক তথ্য জানা না থাকা এবং বিরুপ প্রচারের কারনে ভেড়ার মাংসকে সাধারণত ছাগলের মাংস বলে বিক্রয় করা হয়। এছাড়া সঠিক ও আধুনিক পদ্ধতিতে ভেড়া পালনের উপর তেমন কোন ভালো বই বা ম্যানুয়েল না থাকায় ভেড়া পালন কার্যত জনপ্রিয় হয়ে উঠেনি।

Agrilife24.com:The Asian Productivity Organization (APO) is going live on 29 June from 14:00 to 15:00 JST to talk about Innovative, Productive Permaculture with Ali Riza Ersoy, Founder, ION Academy.

এগ্রিলাইফ২৪ ডটকম:বাঙালির ঐতিহ্য মাছে ভাতে বাঙালি প্রবাদ থেকেই বুঝা যায় মাছ বাঙালির খাদ্যে ওতপ্রোতভাবে জড়িত।  শুধু তাই নয় প্রানীজ আমিষের একটি বড় অংশ আসে এই মাছ থেকে। দেশের ক্রমবর্ধমান জনসংখ্যার সাথে তাল মিলিয়ে প্রয়োজনীয় পরিমানে মাছ উৎপাদন করতে প্রয়োজন আধুনিক উপকরণ। মৎস্য চাষীদের মাঝে যুগোপোযোগী উপকরণ সরবরাহে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে মৎস্য অধিদপ্তর।