এগ্রিলাইফ২৪ ডটকম:দেশে ছোট (গুড়া) চিংড়ির চাষকে জনপ্রিয় ও লাভজনক করার লক্ষ্যে লাগসই প্রযুক্তি উদ্ভাবনের উপর গুরুত্বারোপ করার পাশাপাশি প্রয়োজনীয় সুপারিশ প্রদান করেছেন মৎস্য বিজ্ঞানী ও গবেষকগণ। গতকাল ৩০ জুন ইনস্টিটিউট এর সদর দপ্তরের কনফারেন্স রুমে অনুষ্ঠিত বাংলাদেশ মৎস্য গবেষণা ইনস্টিটিউটের ব্যবস্থাপনায় "মিঠাপানির ছোট চিংড়ি মাছের চাষ ও সম্ভাবনা" শীর্ষক সেমিনারে বক্তাগণ এর জন্য প্রয়োজনীয় সুপারিশ প্রদান করেন।

Program awards researchers and scientists for sustainable solutions to agricultural challenges / Selected grant winners receive both financial prize and mentorship from industry leaders

এগ্রিলাইফ২৪ ডটকম:কৃষিবান্ধব সরকারের সহায়তা এবং  নুতন নুতন কৃষি প্রযুক্তি প্রশিক্ষনের মাধ্যমে হস্তান্তর নতুন-নতুন প্রযুক্তি আর প্রশিক্ষণ হস্তান্তর এবং ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের প্রচেষ্টায় ঝিনাইদহ জেলা দিনদিন পরিণত হচ্ছে খাদ্য ভান্ডারের জেলায়। প্রণোদনা প্রদানের পাশাপাশি কৃষকদের নিয়মিত শস্য ভিত্তিক প্রশিক্ষণ ও পরামর্শ প্রদান, নতুন নতুন প্রযুক্তি হস্তান্তর এবং স্থানীয় কৃষি বিভাগ ও কৃষকদের সমন্বিত কার্যক্রমের ফলে এসব সম্ভব হচ্ছে।

এগ্রিলাইফ২৪ ডটকম:সিলেট জেলার কানাইঘাট উপজেলার কৃষি অফিসের আয়োজনে আজ ৩০ জুন উপজেলা পরিষদের হল রুমে খরিফ-২ মৌসুমে রোপা আমন ধানের প্রনোদনা কর্মসূচির আওতায় বীজ ও রাসায়নিক সার বিতরণ অনুষ্ঠান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুমন্ত ব্যানার্জী সভাপতিত্বে কৃষি সম্প্রসারণ অফিসার হায়দার আলীর পরিচালনায় অনুষ্ঠিত হয়।

কৃষিবিদ দীন মোহাম্মদ দীনু:ইমেজ প্রসেসিং প্রযুক্তি ব্যবহার করে স্বল্পসময়ে ও কম খরচে মাটির স্বাস্থ্য নিরীক্ষণ করা সম্ভব। মেশিন ভিশন সিস্টেম ফর প্রিসিসন ফার্টিলাইজার ম্যানেজমেন্ট ইন এগ্রিকালচার" শীর্ষক প্রকল্পে সারের যথাযথ ব্যবহার বিষয়ক কর্মশালায় মুল প্রবন্ধ উপস্থাপনকালে কৃষি শক্তি ও যন্ত্র বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক  ও প্রকল্পের প্রধান গবেষক ড. মো. হামিদুল ইসলাম এসব কথা জানান।

এগ্রিলাইফ২৪ ডটকম:কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের সরেজমিন উইং-এর সাবেক পরিচালক কৃষিবিদ মোঃ আব্দুল হান্নান আর নেই। ডায়াবেটিস ও কিডনি জনিত জটিলতায় ভুগে হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে ২৯ জুন রোজ মঙ্গলবার রাত ৭.৪০ মিনিটে শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৬১ বৎসর। তিনি বিসিএস (কৃষি) ক্যাডারের ১৯৮৩ ব্যাচের একজন সৎ, সুদক্ষ ও সজ্জন কর্মকর্তা হিসেবে সকলের নিকট আস্থাভাজন ছিলেন।