এগ্রিলাইফ২৪ ডটকম:করোনা পরিস্থিতিতে চলমান আউশ ও আসন্ন আমন মৌসুমে ধান উৎপাদন ও প্রণোদনা বিতরণসহ সার্বিক কৃষি কার্যক্রম মন্ত্রণালয়ের পক্ষে সমন্বয় ও তদারকির দায়িত্ব দেয়া হয়েছে মন্ত্রণালয়ের সাতজন অতিরিক্ত সচিবকে। এই ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দের প্রত্যেকে ২ টি করে সারা দেশের মোট ১৪টি কৃষি অঞ্চলের কার্যক্রম  সমন্বয় ও তদারকি করবেন।

এগ্রিলাইফ২৪ ডটকম:আগামী মার্চে ঢাকায় অনুষ্ঠিতব্য জাতিসংঘের খাদ্য ও কৃষি সংস্থা-এফএওর ৩৬তম এশিয়া ও প্যাসিফিক আঞ্চলিক সম্মেলন (এপিআরসি-৩৬) সফলভাবে আয়োজনের জন্য সব ধরণের প্রস্তুতি নেয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছেন কৃষিমন্ত্রী ড. মো: আব্দুর রাজ্জাক এমপি। তিনি বলেন, বাংলাদেশ প্রথমবারের মতো এ সম্মেলন আয়োজন করতে যাচ্ছে। এটি খুবই আনন্দের ও সম্মানের। এ বৃহৎ সম্মেলন আয়োজনের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ সরকারের সকল সক্ষমতা রয়েছে। এটি সফলভাবে আয়োজনের জন্য আমরা সার্বিক পূর্বপ্রস্তুতি গ্রহণ করছি।

এগ্রিলাইফ২৪ ডটকম:করোনা পরিস্থিতিতে অনলাইনে কোরবানির পশু ক্রয়-বিক্রয় রাষ্ট্রের জন্য সহায়ক বলে জানিয়েছেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম। সোমবার (০৫ জুলাই) ই-কমার্স প্লাটফর্ম ভালোকিনি ডট কম ও বেসরকারি সংস্থা গণ উন্নয়ন কেন্দ্রের যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত ‘চরাঞ্চলের গরুর অনলাইন হাট’-এর উদ্বোধন অনুষ্ঠানে রাজধানীর বেইলি রোডের সরকারি বাসভবন থেকে ভার্চুয়ালি সংযুক্ত হয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী একথা জানান।

এগ্রিলাইফ২৪ ডটকম:কোরবানিকে সামনে রেখে দেশের বাইরে থেকে গবাদিপশু আসতে দেওয়া হবে না বলে জানিয়েছেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম এমপি। রবিবার (০৪ জুলাই) ডিএনসিসি ডিজিটাল হাটের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে রাজধানীর বেইলি রোডের সরকারি বাসভবন থেকে ভার্চুয়ালি সংযুক্ত হয়ে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী একথা জানান।

এগ্রিলাইফ২৪ ডটকম:কৃষিমন্ত্রী ড. মো: আব্দুর রাজ্জাক, এমপি বলেছেন, বাংলাদেশ এখন আর ভিক্ষুকের জাতি না। বিদেশি সাহায্যের উপর বাংলাদেশ এখন আর নির্ভরশীল না; বরং আত্মনির্ভরশীল। একসময় দুর্যোগ হলেই বাংলাদেশকে অন্যের কাছে হাত পাততে হতো। কিন্তু এখন শত প্রাকৃতিক দুর্যোগের মধ্যেও বাংলাদেশকে পৃথিবীর কারও কাছে হাত পাততে হয় না।

এগ্রিলাইফ২৪ ডকম:মহামারি করোনাকালে দেশের আপামর জনসাধারণের প্রাণিজ আমিষ নিশ্চিতকরণে এই সময়ে জনগণের পুষ্টি চাহিদা পূরণ ও রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধির জন্য ভোক্তা পর্যায়ে প্রাণিজ আমিষ সরবরাহ অত্যন্ত জরুরি। এসব বিষয় জরুরি বিবেচনায় মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সিদ্ধান্ত অনুযায় প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের উদ্যোগে চালু হয়েছে একটি কন্ট্রোল রুম। ৩০ জুন (বুধবার) প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক-এর পক্ষে উপ-পরিচালক (এইচআরডি) ডা.পল্লব কুমার দত্ত স্বাক্ষরিত এক অফিস আদেশের মাধ্যমে এ তথ্য জানিয়েছেন।