এগ্রিলাইফ২৪ ডটকম:জাটকা আহরণে বিরত থাকা জেলেদের জন্য মানবিক সহায়তা কর্মসূচির আওতায় ২০২০-২০২১ অর্থবছরে ২৬ হাজার ৩০৫.২০ মেট্রিক টন ভিজিএফ চাল বরাদ্দ করেছে সরকার। দেশের ২০ জেলার জাটকা সম্পৃক্ত ৯৮টি উপজেলায় ৩ লক্ষ ২৮ হাজার ৮১৫টি জেলে পরিবারকে খাদ্য সহায়তা প্রদানের লক্ষ্যে বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। এর আওতায় ১ম ধাপে ফেব্রুয়ারি-মার্চ দুই মাস প্রতিটি নিবন্ধিত ও কার্ডধারী জেলে পরিবারকে মাসে ৪০ কেজি হারে (২ মাসে ৮০ কেজি) চাল প্রদান করা হচ্ছে।

এগ্রিলাইফ২৪ ডটকম:কৃষিমন্ত্রী ড. মো: আব্দুর রাজ্জাক এমপি বলেছেন, কৃষি সব সময়ই একটি চ্যালেঞ্জিং পেশা। নতুন নতুন সমস্যা আসবে।  সেসব সমস্যা মোকাবিলা ও কৃষির অপার সম্ভাবনাকে কাজে লাগাতে সকলকে কর্মঠ ও নিষ্ঠাবান হয়ে কাজ করতে হবে। কঠোর পরিশ্রম, আন্তরিকতা  ও নিবেদিতভাবে কাজ করে যেতে হবে। বিজ্ঞানের নতুন নতুন আবিষ্কার ও  উদ্ভাবিত প্রযুক্তিগুলোকে কৃষিতে ব্যবহারের দক্ষতা অর্জন করতে হবে। যারা আগ্রহ নিয়ে নিষ্ঠা ও আন্তরিকতার সাথে প্রতিকূল পরিবেশে কাজ করবে তাদেরকে  অবশ্যই কৃষি মন্ত্রণালয় পুরস্কৃত করবে।

এগ্রিলাইফ২৪ ডটকম:মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম এমপি বলেছেন, "কৃষিবিদদের সামগ্রিক উন্নয়নে বঙ্গবন্ধুর আমল থেকে যে স্বপ্নযাত্রা শুরু হয়েছিল তার ধারাবাহিকতায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কৃষিবিদ ও কৃষকদের নজিরবিহীন মূল্যায়ন করেন। কৃষিবিদরা শুধু কৃষির উন্নয়নে ভূমিকা রাখলে হবে না, কৃষিবান্ধব সরকারের অভীষ্ট ও লক্ষ্যে পৌঁছানোর ক্ষেত্রে রাজনৈতিক সচেতন মানসিকতার বহিঃপ্রকাশ শক্তিশালীভাবে ঘটাতে হবে। শেখ হাসিনা থাকলে কৃষি ও কৃষিবিদবান্ধব সরকার থাকবে। তা না হলে কানসার্টে কৃষকদের গুলি করার মতো ঘটনা ঘটবে। উপেক্ষিত হওয়ার মতো পরিস্থিতি আসবে।"

এগ্রিলাইফ২৪ ডটকম: প্রতিনিধি:কৃষি যান্ত্রিকীকরণ ত্বরান্বিত করতে ইতোমধ্যে কৃষি প্রকৌশলীর ২৮৪টি পদ সৃজন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন কৃষিমন্ত্রী ড. মো: আব্দুর রাজ্জাক এমপি। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে বর্তমান সরকার কৃষিকে আধুনিকীকরণ ও লাভজনক করতে সচেষ্ট রয়েছে। কৃষি যান্ত্রিকীকরণে অত্যন্ত গুরুত্ব দিয়ে নেয়া হয়েছে ৩ হাজার কোটি টাকার প্রকল্প। পাশাপাশি দক্ষ জনবল তৈরিতে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের অধীনে মাঠ পর্যায়ে কৃষি প্রকৌশলী নিয়োগের কার্যক্রম চলছে। ইতোমধ্যে ২৮৪টি কৃষি প্রকৌশলীর পদ সৃজন করা হয়েছে।

এগ্রিলাইফ২৪ ডটকম:বর্ণাঢ্য আয়োজনে পালিত হয়েছে কৃষিবিদ দিবস। ১৯৭৩ সালের ১৩ ফেব্রুয়ারি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সরকারি চাকরিতে কৃষিবিদদের প্রথম শ্রেণীর মর্যাদা দেন। সেই দিনটিকে স্মরণ করে ২০০৯ সালে ১৩ ফেব্রুয়ারী কৃষিবিদ দিবস হিসেবে পালনের সিদ্ধান্ত হয় এবং ২০১১ সাল থেকে ১৩ ফেব্রুয়ারী কৃষিবিদ দিবস হিসেবে নিয়মিত পালন করা হচ্ছে।

এগ্রিলাইফ২৪ ডটকম:ফুল চাষি ও উদ্যোক্তাদের ঋণসহ সব ধরনের সহযোগিতা দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন কৃষিমন্ত্রী ড. মো: আব্দুর রাজ্জাক এমপি। মন্ত্রী আজ শুক্রবার বিকালে গাজীপুরের শ্রীপুরে উদ্যোক্তা দেলোয়ার হোসেনের টিউলিপ ও স্ট্রবেরি বাগান পরিদর্শন শেষে এ কথা বলেন। এসময় স্থানীয় সংসদ সদস্য মো: ইকবাল হোসেন সবুজ উপস্থিত ছিলেন।