এগ্রিলাইফ২৪ ডটকম:পুরো বিশ্বব্যাপী করোনা মহামারির কারণে খাদ্য ও পুষ্টির ক্ষেত্রে অতিদরিদ্র ও দরিদ্র জনগোষ্ঠী, বিশেষ করে শিশু ও নারীরা ঝুঁকির সম্মুখীন হচ্ছে। এ বছর জাতিসংঘের খাদ্য ও কৃষি সংস্থা-(FAO)-এর 'বিশ্ব খাদ্য দিবস ২০২১' উদ্‌যাপনের প্রতিপাদ্য বিষয়ের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে "আমাদের কর্মই আমাদের ভবিষ্যৎ। ভালো উৎপাদনে ভালো পুষ্টি, আর ভালো পরিবেশই উন্নত জীবন" নির্ধারণ করা হয়েছে।

এগ্রিলাইফ২৪ ডটকম:সকল ধর্মাবলম্বীর জন্য যথাযথ মর্যাদা ও স্বাধীনতা নিয়ে উৎসব উদযাপনের অনুকূল পরিবেশ সৃষ্টি করেছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এটাই অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ। আমরা অসাম্প্রদায়িক চেতনা নিয়ে চলতে শিখেছি, এটাই প্রধানমন্ত্রীর শিক্ষা ও বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের আদর্শ।

সমসাময়িক ডেস্ক:বাংলাদেশ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির দেশ। এদেশে শারদীয় দূর্গাউসৎব সনাতন ধর্মাম্বলীদের একার উৎসব আমি বিশ্বাস করি না। এটা জাতি ধর্ম নির্বিশেষে সবার উৎসব। বর্তমান সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা জাতি-ধর্ম-বর্ণ-গোষ্ঠী নির্বিশেষে সবার উন্নয়নে কাজ করেছেন। আর তাই বাংলাদেশ এখন ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সকল মানুষের নিরাপদ আবাসভূমি। এখানে সকল ধর্মের মানুষ শান্তিতে সমভাবে উন্নয়নের সুফল উপভোগ করে বসবাস করছে বলেন তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডা.মো: মুরাদ হাসান এম,পি।  

সমসাময়িক ডেস্ক:মৎস্য গবেষণা ইনস্টিটিউটের সাবেক মহাপরিচালক ইয়াহিয়া মাহমুদকে আগের পদে নিয়োগ দিয়েছে সরকার। এই কর্মকর্তার অবসরোত্তর ছুটি ও এ সংক্রান্ত সুবিধা স্থগিত করে দুই বছরের চুক্তিতে মৎস্য গবেষণা ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক নিয়োগ দিয়ে আজ মঙ্গলবার প্রজ্ঞাপন জারি করেছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়। ‘বাংলাদেশ মৎস্য গবেষণা ইনস্টিটিউট আইন, ২০১৮’ এর ধারা ১১(২) অনুযায়ী অবসরোত্তর ছুটি ও এ সংশ্লিষ্ট সুবিধাদি স্থগিতের শর্তে তিনি মহাপরিচালক (গ্রেড-২) পদে এই নিয়োগ পেয়েছেন।

এগ্রিলাইফ২৪ ডটকম:সকল সম্প্রদায়ের মিলিত প্রচেষ্টায় দেশ স্বপ্নের ঠিকানায় পৌঁছুবে বলেছেন তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ। একইসাথে তিনি বলেন, কেউ কেউ এই সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির বেদীমূলে আঘাত করতে চায়, দেশ ও মানুষের কল্যাণে সম্মিলিতভাবে তাদের প্রতিহত করতে হবে।

আবুল বাশার মিরাজ, বাকৃবি প্রতিনিধি:সনাতনী কৃষি দিয়ে দেশের মানুষের খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করা সম্ভব নয়। উদ্যোক্তা ও বিনিয়োগকারীরা কৃষিতে বিনিয়োগ করছেন ব্যবসায়িক উদ্দেশ্যে। উৎপাদন বাড়াতে বর্তমান কৃষিতে রোবটিক্স, কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা ও ইন্টারনেট অব থিংকস্ যুক্ত হচ্ছে। এজন্য বর্তমান সময়ের কৃষিকে এগিয়ে নিতে শিক্ষিত তরুণদের কৃষির সাথে যুক্ত হতে হবে।