এগ্রিলাইফ২৪ ডটকম:বঙ্গবন্ধুর সমবায় আন্দোলন ও দর্শনকে সফলভাবে  কাজে লাগাতে পারলে দেশে কৃষি উৎপাদন আরও বৃদ্ধি, প্রক্রিয়াজাতকরণ ও সঠিক বাজারজাতের মাধ্যমে কৃষকের ন্যায্যমূল্য নিশ্চিত করা সম্ভব হবে বলে মন্তব্য করেছেন কৃষিমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ড. মো: আব্দুর রাজ্জাক, এমপি। তিনি বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু সবসময় সমবায় আন্দোলন ও উৎপাদন ব্যবস্থার কথা বলতেন। এ সমবায়ে কৃষকের জমি কেউ নিবে না, বরং সকলের জমিকে একসাথে করে একত্রে উৎপাদন করবে। আজকের বাংলাদেশে বঙ্গবন্ধুর সমবায় দর্শনকে কাজে লাগাতে হবে। এটি সফলভাবে করতে পারলে দেশের খণ্ডবিখণ্ড জমিতে উৎপাদন যেমন বহুগুণে বাড়বে, তেমনি উৎপাদিত পণ্যের প্রক্রিয়াজাত ও সঠিক বাজারজাত সম্ভব হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছেন।

এগ্রিলাইফ২৪ ডটকম:সরকারের চমৎকার ব্যবস্থাপনায় বাংলাদেশে ইলিশের উৎপাদন এখন বিশ্বের বিস্ময় বলে মন্তব্য করেছেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম এমপি।

এগ্রিলাইফ২৪ ডটকম:প্রাণিসম্পদ খাতে দক্ষ ও প্রশিক্ষিত জনশক্তি তৈরিতে সরকার কাজ করছে বলে মন্তব্য করেছেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম।

এগ্রিলাইফ২৪ ডটকম:আলু রপ্তানি বৃদ্ধিতে সব ধরনের সহযোগিতা প্রদান করা হবে বলে জানিয়েছেন কৃষিমন্ত্রী ড. মো: আব্দুর রাজ্জাক এমপি। তিনি বলেন, দেশে আলু খুবই সম্ভাবনাময় একটি ফসল। আবহাওয়া ও মাটি আলুচাষের অনুকূল। আলুর বাজার ও চাহিদা বাড়াতে পারলে উৎপাদন আরো অনেকগুণে বাড়ান সম্ভব। সেজন্য আমরা বিদেশে আলুর বাজার বিস্তৃত করতে কাজ করছি। ইতোমধ্যে আলু রপ্তানি বৃদ্ধির জন্য খসড়া রোডম্যাপ প্রণয়ন করা হয়েছে। এছাড়া, রপ্তানির ক্ষেত্রে বিদ্যমান সমস্যাগুলো নিরসনকল্পে কাজ চলছে।

এগ্রিলাইফ২৪ ডটকম: প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের নতুন মহাপরিচালককে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানাল বিপিআইসিসি। আজ মঙ্গলার (২ নভেম্বর) প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তর কার্যালয়ে বিপিআইসিসি’র একটি প্রতিনিধিদল প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ডা. মনজুর মোহাম্মদ শাহজাদা’র সাথে সাক্ষাৎ করেন এবং নতুন দায়িত্ব প্রাপ্তিতে তাঁকে অভিনন্দন জানান। প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দেন বাংলাদেশ পোল্ট্রি ইন্ডাষ্ট্রিজ সেন্ট্রাল কাউন্সিল (বিপিআইসিসি) এবং ওয়ার্ল্ড’স পোল্ট্রি সায়েন্স এসোসিয়েশন- বাংলাদেশ শাখা’র (ওয়াপসা- বিবি) সভাপতি মসিউর রহমান।

এগ্রিলাইফ২৪ ডটকম:কৃষির বাণিজ্যিকীকরণ, প্রক্রিয়াজাতকরণ ও কৃষিপণ্যের রপ্তানি বৃদ্ধিতে বৃটেনের প্রযুক্তিগত ও পরিচালনা বিষয়ে সহযোগিতা চায় বাংলাদেশ।