নিজস্ব প্রতিবেদক:কৃষি উৎপাদন বৃদ্ধি এবং শ্রমিকের সংকট মেটাতে অবদান রাখছে কৃষি যান্ত্রিকীকরণ। ২০৩০ সালের মধ্যে ৫০% কৃষি যান্ত্রিকীকরণের লক্ষ্যে কাজ করছে বর্তমান সরকার। ধানের উৎপাদন বৃদ্ধি করতে হলে প্রয়োজন ব্রি ধানের সম্প্রসারণ এবং কৃষি যান্ত্রিকীকরণ। সে লক্ষে ঝিনাইদহে Rice Transplanter & Combine Harvester এর ব্যবহার ১০০ শতাংশে উন্নীত করতে ঝিনাইদহ কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর মাঠ পর্যায়ে ব্যাপক সম্প্রসারণমূক কাজ করে যাচ্ছে।

জেলা বার্তা পরিবেশক, নওগাঁ:পদ্মা সেতু উদ্বোধন উপলক্ষে নওগাঁয় মেতে উঠেছে সর্বস্তরের মানুষ। এ উপলক্ষে জেলা প্রশাসনে আয়োজনে শনিবার সকাল ৯টায় শহরের নওজোয়ান মাঠ থেকে একটি আনন্দ শোভাযাত্রা বের হয়ে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন করে মুক্তির মোড় গিয়ে শেষ হয়। পরে সেখানে পদ্মা সেতু মূল উদ্বোধন অনুষ্ঠান বড় পর্দায় দেখানো হয়। শোভাযাত্রাটির নেতৃত্ব দেন জেলা প্রশাসক খালিদ মেহেদী হাসান।

এগ্রিলাইফ২৪ ডটকম:সুনামগঞ্জের ভয়াবহ বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের পাশে দাঁড়াতে বিভিন্ন ত্রাণ সামগ্রী নিয়ে ছুটে গেছে ইয়ামাহা রাইডারস্ ক্লাব এর একটি দল। বৃষ্টি আর পাহাড়ী ঢলে সৃষ্ট বন্যায় কয়েকদিন ধরে উক্ত অঞ্চলের পানিবন্দী মানুষজন চরম খাদ্য সংকটে রয়েছে। এ অবস্থায় বানভাসি মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে ইয়ামাহা রাইডারস্ ক্লাব।

নাহিদ বিন রফিক(বরিশাল): আবহাওয়া কৃষির সাথে ওতপ্রোতভাবে জড়িত। শুধু দুর্যোগকালিন মুহূর্তের জন্য নয়,  বছরের অন্য সময়ও এর প্রতি সমান গুরুত্ব দিতে হবে। তাহলেই প্রাকৃতিক বিপর্যয় থেকে ফসলকে রক্ষার করা যাবে। তেমনি শস্যের উৎপাদনও বাড়ানো সম্ভব হবে। আর এ জন্য অবশ্যই আবহাওয়ার পূর্বাভাস সম্পর্কে জানা জরুরি।

আবুল বাশার মিরাজ, বাকৃবি প্রতিনিধি:উদ্বোধনের অপেক্ষায় নিজস্ব অর্থায়নে নির্মিত বাংলাদেশের স্বপ্নের পদ্মা সেতু। সেতু চালুর পরপরই বদলে যাবে দেশের অর্থনীতি। পদ্মা সেতুর হওয়ার ফলে ব্যাপক হারে শিল্পায়ন হবে এবং লাখ লাখ মানুষের কর্মসংস্থান হবে। বিশেষ করে কৃষিতে আসবে বৈপ্লবিক পরিবর্তন। সেই সাথে কৃষিভিত্তিক অর্থনীতির ব্যাপক হারে পরিবর্তন সাধিত হবে। উৎপাদিত কৃষি পণ্য দ্রুত পরিবহণের ফলে জিডিপি প্রবৃদ্ধির হার ১ দশমিক ২ শতাংশ বেড়ে যাবে। এতে প্রতি বছর দারিদ্র্য নিরসন হবে ০.৮৪ ভাগ। আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন ঘটবে দেশের দক্ষিণাঞ্চলের ২১ জেলার প্রায় ছয় কোটি মানুষের।

এগ্রিলাইফ২৪ ডটকম:পানি সম্পদ উপ-মন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক একেএম এনামুল হক শামীম বলেছেন; বাংলাদেশের যা কিছু অর্জন তা আওয়ামী লীগের হাত ধরেই। স্বাধীনতা অর্জনে নেতৃত্বদানকারী আওয়ামী লীগ দেশ পরিচালনা করে দেশের বাজেটের আকার, রাজস্ব আয়, রেমিট্যান্স, দারিদ্র্য নিরসন, খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জন, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা, অবকাঠামো তৈরি ও উন্নয়ন, মানবসম্পদ উন্নয়নে সাফল্য এসেছে। সব কৃতিত্ব জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তার কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার।