ফোকাস ডেস্ক:বঙ্গবন্ধুর রক্ত ও আদর্শের সার্থক উত্তরসূরি তারই সুযোগ্য কন্যা বিশ্বনন্দিত রাষ্ট্রনায়ক মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনা। তাঁর দূরদৃষ্টিসম্পন্ন নেতৃত্বে বাংলাদেশ ইতোমধ্যে নিম্ন-মধ্যম আয়ের দেশের সুখ্যাতি লাভ করেছে এবং উন্নয়নের সুফল থেকে যাতে কেউই বঞ্চিত না হয় সে-লক্ষ্যে সরকার টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের সুসমন্বিত কর্মপন্থা বাস্তবায়ন করে চলছে। দেশকে একটি কাঙ্খিত পর্যায় নিয়ে যেতে ২০১৮ সালে নির্বাচনে ইশতেহারে জাতির কাছে অঙ্গীকার। দেশের দারিদ্রের হার ২০২৩ সালে হবে ১২ শতাংশ এবং ২০৩০ সালে হবে ৪ শতাংশ।

রাজধানী প্রতিবেদক:মানুষের জীবনের শুরুতে কোন না কোন সময় সুন্দর মুহূর্ত আসে। যে মুহূর্তগলো জীবনের শেষ দিন পর্যন্ত উজ্জ্বল হয়ে থাকে। নতুন কর্ম প্রেরণা আর উদ্যম নিয়ে প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের এমনি এক স্বর্ণযুগের যাত্রা শুরু হলো।  আজ শনিবার (৯ নভেম্বর ) রাজধানীর ফার্মগেটস্থ BARC মিলনায়তনে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধা জনাব আশরাফ আলী খান খসরু এমপি এসব কথা বলেন।

ফোকাস ডেস্ক:বাংলাদেশ ভৌগলিক ভাবে প্রাকৃতিক দূর্যোগ প্রবণ এলাকা। বাংলাদেশ ঝড়ের দেশ। জলোচ্ছ্বাসের দেশ। ইতিহাসের বিভিন্ন সময় এই ভূখন্ডে ঘটে গেছে ভয়ংকরতম কিছু ঘূর্ণিঝড়। ইতিহাসের বিভিন্ন সময় বিভিন্ন নামে এগুলো তান্ডব চালিয়েছে আমাদের দেশে।

আওয়ামী লীগ এর শক্তি তৃণমূলের কর্মী ও সাধারণ মানুষ। ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের কাউন্সিল এ বিপুল মানুষের সমাগম উৎসাহ উদ্দিপনা প্রমান করে এই দলের শিকড় কতটা বিস্তৃত কতটা মজবুদ। সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে দেশের উন্নয়নে নিজেদের নিয়োজিত রাখতে হবে। আজ শুক্রবার কৃষি মন্ত্রী ড. মোঃআব্দুর রাজ্জাক এমপি ধনবাড়ী উপজেলা ও পৌরসভার বিভিন্ন ওয়ার্ডের আওয়ামী লীগ এর কাউন্সিলে এসব কথা বলেন।

Staff reporter:Dairy farming has become a growing part of the national income in Bangladesh. It has important role in the reduction of poverty and rise in self-employment of youth. One of the main challenges in this farming situation is to keep the cows healthy.

ফোকাস ডেস্ক:বাংলাদেশের কৃষিতে সাধারণত ইউরিয়া, টিএসপি, ডিএপি, এমওপি, জিপসাম, জিংক সালফেট এবং বরিক এসিড ব্যবহার করা হয়। আমরা চাই সারের জন্য আর কোন কৃষক যেন কষ্ট করতে না হয়  সেজন্য দেশে পর্যাপ্ত পরিমান সার মজুদ রয়েছে। কৃষক পর্যায় মিশ্র সার ব্যবহার বৃদ্ধির জন্য আরও বেশি বেশি উদ্বুদ্ধ করতে হবে। ভেজাল সার প্রতিরোধে নিয়মিত বাজার মনিটরিং করতে হবে; এ ব্যাপারে কোন গাফিলতি মেনে নেয়া হবে না।