রাজধানী প্রতিবেদক:আগামী ১৬ অক্টোবর রোজ বুধবার বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশেও পালিত হবে বিশ্ব খাদ্য দিবস। এ বছর দিবসটির মূল প্রতিপাদ্য হচ্ছে "আমাদের কর্মই আমাদের ভবিষ্যৎ, পুষ্টিকর খাদ্যেই হবে আকাঙ্ক্ষিত ক্ষুধামুক্ত পৃথিবী"। এ উপলক্ষে রাজধানীর কেআইবি অডিটরিয়ামে সেমিনার এবং কেআইবি কমপ্লেক্স চত্বরে তিনদিনব্যাপি (১৬-১৮ অক্টোবর) খাদ্য মেলা অনুষ্ঠিত হবে।

Agilife24.com: Agrovet division of Square Pharmaceuticals Limited started a new horizon in country's Animal Health Sector. They began a new journey of The Volvac® Line of poultry vaccines in Bangladesh. Mr. Tapan Chowdhury, Managing Director of Square Pharmaceuticals Limited officially inaugurated the Volvac® Line of poultry vaccines from Boehringer Ingelheim at the capital's elite Radisson Blue Water Garden on Thursday 10th October evening.

Staff reporter, agrilife24.com: “Asian Nutrition Forum-2019 was held in Dhaka on Saturday 12th  October, 2019 at Hotel Le Meridian, Dhaka. This seminar was jointly organized by the national Animal Health leader Company of Bangladesh Renata Limited and world nutritional reputed company Biomin GmbH.

উৎপাদন হবে ১৭৮১ কোটি ডিম, ব্যবসা হবে ১২,৪৬৭ কোটি টাকার
ফোকাস ডেস্ক:চলতি বছরেই বাংলাদেশ ডিমে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জন করবে বলে জানিয়েছেন প্রাণিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী মোঃ আশরাফ আলী খান খসরু, এম.পি। আজ বিশ্ব ডিম দিবস উদ্যাপন উপলক্ষ্যে রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত হয়ে তিনি একথা বলেন।

ফোকাস ডেস্ক:চাষা বলে একসময় অভিজাত শ্রেণীর লোকেরা কৃষককে চাষা গালি দিতো। দিন বদলেছে, কৃষি এখন অভিজাতদের পেশায় পরিণত হয়েছে। এখন অভিজাত শ্রেণীর শিক্ষিত লোকেরা গর্বকরে কৃষিকাজের নিজের সম্পৃক্ততার কথা বলেন। অনেক মেধাবী ও তরুনরা পশ্চিমা দেশের উচ্চ ডিগ্রী  নিয়ে কৃষি কাজ করছেন। জলবায়ু পরিবর্তনের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা এবং টেকসই কৃষির লক্ষ্য পূরণে মেধাবী ও তরুণদের এগিয়ে আসতে হবে। কৃষির গুরুত্ব অপরিসীম। অন্য যে কোনো ক্ষেত্র থেকে দেশে কৃষির সম্ভাবনা অনেক বেশি।

ফোকাস ডেস্ক:কৃষি মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য কৃষিবিদ আব্দুল মান্নান এমপি বলেছেন, বিগত বছরে ইঁদুর অভিযানে আমাদের কোনো লাভ হয়েছে কিনা, তার মূল্যায়ন  দরকার। শুধু ইঁদুর নিধন অভিযান চালিয়ে কোনো লাভ হবে না। কয়েকটি বড় প্রকল্প ছাড়া অন্য কোনো প্রকল্প ও কর্মসূচির প্রকৃত অর্থে মূল্যায়নের হিসাব পাওয়া যায় না। আগামীতে এ বিষয়টি হিসাব নিকাশের মধ্যে আসতে হবে। ইঁদুর কোন ফসলে কি পরিমান ক্ষতি করে এবং টাকার অংকে তার পরিমান কত তাও বের করতে হবে।